জেনে নিন যে কারণে বিশ্বকাপের আগেই অবসর নিয়েছেন ডি ভিলিয়ার্স

সোমবার, মে ২০, ২০১৯ ২:১০ অপরাহ্ণ

বিশ্বকাপকে সামনে রেখে রেখে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকান তারকা এবি ডি ভিলিয়ার্স। একটা সময় ব্যাট হাতে শাসন করেছেন পুরো বিশ্বের বোলারদের।মাঠের যেকোনো প্রান্ত দিয়ে বল সীমানাছাড়া করতে পারেন বলে পেয়েছেন ‘মিস্টার ৩৬০ ডিগ্রি’ খেতাব। কিন্তু বিশ্বকাপের মাত্র এক বছর আগে ২০১৮ সালে হঠাৎ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়ে দেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক এবিডি ভিলিয়ার্স।আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও এখনো যে ফুরিয়ে যাননি বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্জাইজি লিগে তার জানান দিচ্ছেন তিনি।

তাহলে কেনো বিশ্বকাপ না খেলেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন ডি ভিলিয়ার্স? এমন প্রশ্ন তার সমর্থকদের মনে ঘুরপাক খেয়েছে নিশ্চয়ই।এবার তিনি নিজেই বিশ্বকাপ শুরুর আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর কারণ জানিয়েছেন।জানতে চাওয়া হয় এমন সিদ্ধান্তের কারণ।অবসর ভেঙে ফিরে আসা প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হয় ডি ভিলিয়ার্সের কাছে। সেখানে তিনি মজার ছলে বলেন, ‘২০২৩ বিশ্বকাপের সময় আমার বয়স কত হবে? ৩৯! ধোনি যদি এখনও খেলতে পারে তাহলে আমিও আবার ফিরে আসতে পারি (হাসি)।’

ভারতীয় এক আলোচনামূলক অনুষ্ঠানে নানান আলোচনার ফাঁকে উঠে আসে ডি ভিলিয়ার্সের আকস্মিক অবসরের ঘটনাও।তবে এ কথাটি যে স্রেফ মজার ছলেই বলা, তা বোঝাতেও সময় নেননি তিনি। সে অনুষ্ঠানে বিশ্বকাপের আগে নিজের অবসরের কারণ জানিয়ে ডি ভিলিয়ার্স বলেন, ‘আমি নিজেও ২০১৯ বিশ্বকাপে খেলতে আগ্রহী ছিলাম। কিন্তু আমি অবসর নিয়েছি।

আমি খুব ঠাণ্ডা মাথায় এ সিদ্ধান্তটি নিয়েছি। আমার ক্যারিয়ারের শেষ তিন বছর পরিস্থিতি এমন ছিলো যে, আমি কখন খেলবো আর কখন খেলবো না তা অন্য কেউ ঠিক করে দিচ্ছিলো। এছাড়া দেশে ফিরলেই কারণে-অকারণে সমালোচনার শিকার হচ্ছিলাম। এটাও অবসরের অন্যতম কারণ।’সামনেই বিশ্বকাপ।

ক্রিকেট শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে ব্যাট হাতে নিশ্চয়ই ঝড় তুলবেন ব্যাটসম্যানরা। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়েও হয়তো আলো ছড়াবেন নতুন বা অভিজ্ঞ কোনো তারকা। তবে ক্রিকেটেই মহারণে কেউ না কেউ নিশ্চয়ই খুঁজে ফিরবেন ডি ভিলিয়ার্সকে, তার ব্যাটের অদ্ভুত সব শটকে।